সোশ্যাল সাইটে গৃহবধূকে অশালীন প্রস্তাব যৌণ হেনস্থার অভিযোগ, তদন্তে পুলিশ

আমার কথা, বাঁকুড়া, ১০জুলাইঃ

সোস্যাল সাইটের মাধ্যমে কুরুচিকর যৌন হেনস্থা, মোবাইলে ফোন করে অশ্লীল গালিগালাজ এমনকী দম্পতী কে খুনের হুমকীতে জর্জরিত হয়ে, শেষে থানায় গিয়ে অভিযুক্তের নামে অভিযোগ দায়ের করলেন এক গৃহবধূ।

বাঁকুড়া সদর থানার পুরুন্তী গ্রামের ওই গৃহবধূর অভিযোগ, পুরুলিয়ার কাশীপুর থানার বডডিহা গ্রামের বাসিন্দা তীর্থার্ত মিশ্র ওরফে বাচ্চার নামে এক যুবক, দীর্ঘদিন ধরে মোবাইলে অশ্লীল ম্যাসেজও গালিগালাজ করছে। হোয়াটস অ্যাপে অশ্লীল ভিডিও পাঠিয়ে বিরক্ত করে। স্বামীকে বিষয়টি জানালে,তার স্বামী ফোন করে প্রতিবাদ করলে, স্বামী ও গৃহবধূকে খুন করে ফেলারও হুমকী দেয় তীর্থার্ত।

শেষে তার জ্বালাতনে অতিষ্ঠ হয়ে, স্বামীকে নিয়ে সদর থানায় গেলে প্রথমে অভিযোগ নিতে অস্বীকার করা হয়। উল্টে এক পুলিশ আধিকারিক সিম কার্ড বদলে ফেলার নিদান দিয়ে দায় সারেন! বলেও অভিযোগ তোলেন ওই গৃহবধূ। পরে, সংবাদ মাধ্যমের কাছে ওই মহিলা বিষয়টি নজরে আনলে টনক নড়ে সদর থানার! অবশেষে গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে এফ,আই,আর নেয় সদর থানা।

মহিলা পুরুলিয়ার ওই অভিযুক্ত যুবকের দৃষ্টাম্তমূলক শাস্তির দাবী তুলেছেন। এদিকে ওই যুবকের দুটি মোবাইল নাম্বার ও হোয়াটস অ্যাপের ডিটেইলস নিয়ে পুলিশ প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গেছে। শহর, মফস্বল ছাড়িয়ে এবার গ্রামে, গঞ্জেও এই স্যোশাল সাইট ও মোবাইল ফোনে যৌন হেনস্থার ঘটনাও আকছার ঘটছে। কিন্তু, বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় না। তবে, এই দম্পতি সাহস করে অভিযুক্তকে সায়েস্তা করতে, থানায় অভিযোগ দায়েরে এগিয়ে এসেছেন যা,কুর্নিশ যোগ্য।



Spread The Word