বর্ধমান মেডিক্যাল হাসপাতালে ধরা পড়ল দালাল চক্রের পান্ডা

আমার কথা, পূর্ব বর্ধমান, ১৭নভেম্বরঃ

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ভেতরে দালাল চক্রের এক পান্ডাকে হাতে নাতে ধরল রোগীর পরিবার। এরপর তাকে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। ধৃতের নাম সেখ ইদ মহম্মদ। বাড়ি বর্ধমান শহরের বাহির সর্বমঙ্গলা পাড়ায়।

জানা গেছা, বীরভূমের বোলপুর মহকুমা হাসপাতাল থেকে একজন প্রসূতিকে গতকাল স্থানান্তরিত করা হয় বর্ধমান মেডিক্যাল হাসপাতালে। গতকাল ওই প্রসূতিকে এক বোতল রক্ত দেওয়া হয়। আক ফের রক্তের প্রয়োজন পড়ে। প্রসূতির পরিবারের সদস্যরা যখন চার বোতল রক্তের জন্য হন্যে হয়ে ছুটোছুটি করছিলেন সেই সময় সামনে এসে উপস্থিত হউ অভিযুক্ত দালালা সেখ ইদ মহম্মদ। সে প্রসূতির আত্মীয়দের জানায় চার হাজার টাকা অগ্রিম দিলেই চার বোতল রক্ত পাওয়া যাবে। সেই মতো নিরুপায় প্রসূতির পরিবার তাকে চার হাজার টাকাও দিয়ে দেয়। কথা হয় দুপুরে চার বোতল রক্ত সে দিয়ে যাবে। কিন্তু প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সে রক্তের জোগান না দেওয়ায় প্রসূতির পরিবার চেঁচামেচি শুরু করে। হাসপাতাল চত্বরে এ হেন ঘটনা নজর এড়ায় না নিরাপত্তারক্ষীদের। তারা সেখ ইদ মহম্মদকে আটকে রেখে খবর দেয় থানায়। বর্ধমান থানার পুলিশ গিয়ে অভিযুক্তকে পাকড়াও করে থানায় নিয়ে যায়।




Spread The Word