চিকিৎসায় গাফিলতিতে রোগী মৃত্যু, পানাগড় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে অভিযুক্ত চিকিৎসকের অপসারনের দাবি

আমার কথা, পানাগড়, ৪ডিসেম্বরঃ

রোগীদের সাথে দুর্ব্যবহার সাথে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠল পানাগড় প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসক দুর্গেশ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। চিকিৎসকের গাফিলতির কারনে এক রোগীর মৃত্যুও হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন স্থানীয়রা। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বিএমওএইচ রথীন মুখার্জী।

অভিযোগ উঠছে, শনিবার স্থানীয় রাস্তার ধারে পড়ে থাকা এক পথচারীকে অসুস্থ অবস্থায় তুলে নিয়ে আসে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। সেখানে সেই সময় কর্তব্যরত ছিলেন চিকিৎসক দুর্গেশ চক্রবর্তী। তিনি ওই পথচারীকে দেখেন বলেন যে সে অসুস্থ নয়, মাতাল, আর এটা ধর্মশালা নয়। এই অজুহাত দেখিয়ে তাকে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তিও নেওয়া হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে স্থানীয়রা ওই পথচারীকে অনত্র থাকার ব্যবস্থা করেন। গতকাল ওই পথচারীর মৃত্যু হয়, আর তার কারন হিসেবে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসককেই দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

এছাড়াও ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গত সাতদিন ধরে কাঁকসা কলোনীর বাসিন্দা এক যুবক জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ওই পানাগট স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি রয়েছেন। ওই যুবকের পরিবারের অভিযোগ, ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ঠিকমতো চিকিৎসা হয় না, এমনকি নিম্নমানের খাবার দেওয়া হয় রোগীদের। আরো অভিযোগ আজ সকালে ওই যুবকের রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট সাথে যুবকের শারীরিক বিষয়ে কথা বলতে গেলে দুর্ব্যবহার করেন চিকিৎসক দুর্গেশ চক্রবর্তী।

পুরো বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলতে চাননি অভিযুক্ত ওই চিকিৎসক। তবে বিএমওএইচ রবীন মুখার্জী বলেন যে, তিনি গোটা ঘটনা শুনেছেন, খোঁজ নিয়ে দেখছেন কি হয়েছিল। অভিযুক্ত ওই চিকিৎসকের বদলিরও দাবি জানান রোগীর পরিবারের সদস্যরা সহ স্থানীয়রা।




Spread The Word