অন্ডালে নির্মীয়মান দলীয় দপ্তরকে ঘিরে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

আমার কথা, অন্ডাল, ২৭ফেব্রুয়ারীঃ

ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এলো প্রকাশ্যে। দলীর দপ্তর নিয়ে অন্ডালের খান্দরা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শ্যামল অধিকারী ও ব্লকের সভাপতি অলক মন্ডলের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে যা নিয়ে খান্দরা পঞ্চায়েতে শুরু হয়েছে চাপানউতোর।

জানা গেছে, খান্দরা পঞ্চায়েতের অন্তর্ভূক্ত সিঁদুলী রেলস্টেশনের কাছে ২০০৮ সাল থেকে তৃণমূলের একটি দলীয় দপ্তর রয়েছে। পঞ্চায়েত প্রধান শ্যামল অধিকারীর অভিযোগ, দলনেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশ রয়েছে একই জায়গায় দুটো পার্টি অফিস করা যাবে না। অথচ দলের নেত্রীর সেই নির্দেশকে অমান্য করে অন্ডালের ব্লক সভাপতি অলোক মন্ডল সিঁদুলীর পুরোনো পার্তি অফিসের সামনে আরো একটি পার্টি অফিস তৈরী করছেন। পঞ্চায়েত প্রধানের দাবি দলের মধ্যে অশান্তি ছড়াতে সাথে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তোইরী করতে চাইছেন ব্লক সভাপতি।

অপরদিকে, ব্লক সভাপতির ঘনিষ্ট তৃণমূল নেতা অসীম বারুই সব অভি্যোগ অস্বীকার করে বলেন খান্দরার পঞ্চায়েত প্রধান নিজেই দুর্নীতিগ্রস্থ। তাই এলাকার মানুষ আজ আর তার সাথে নেই। তাই এলাকার মানুষজনের উন্নয়নের জন্য পার্টিও অফিস থেকে আলাদা হয় যুবসমাজ নতুন পার্টি অফিস করছে।

তবে কারন যাই হোক না কেন, একই জায়গায় দুটি দলীয় দপ্তরকে ঘিরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে আসায় এখন অস্বস্তিতে ঘাস ফুল শিবির।  

Spread The Word