দুর্গাপুরে বৌদির সাথে অবৈধ সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ, গ্রেপ্তার স্বামী

আমার কথা, দুর্গাপুর, ৮মার্চঃ

এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে গ্রেপ্তার করা হল তার স্বামীকে। ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুরের নিউটাউনশিপ থানার অন্তর্গত এম এ এম সি টাউনশিপের বি২ এলাকায়। গতকাল সকালে নিজের ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূর দেহ উদ্ধার হয়।

জানা গেছে, পুরুলিয়ার বাসিন্দা টুম্পা সুত্রধরের(৩২) সাথে বছর দশেক আগে বিয়ে হয় দুর্গাপুর নিবাসী ধীরেন সুত্রধরের। ওই দম্পতির একটি নয় বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। টুম্পাদেবীর বাবার বাড়ির পরিবারের অভিযোগ, টাকা পয়সার জন্য টুম্পাদেবীকে চাপ সৃষ্টি করা হতো প্রায় সময়ই। কখনও কখনও অশান্তি চরমে পৌঁছলে গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে ফোন করে তাঁকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলত বলেও জানা গেছে। তবে টুম্পাদেবীর দাদা বুদ্ধেশ্বর সুত্রধরের মূল অভিযোগ, টুম্পাদেবীর স্বামী ও তার বৌদি ঝর্ণা সুত্রধরের বিরুদ্ধে। তার অভিযোগ, যে গৃহবধূর সাথে জা ঝর্ণাদেবীর সম্পর্ক ভাল ছিল না। টুম্পাদেবী তার বৌদিকে জানিয়েছিল গৃহবধূর স্বামীর সাথে তার জা ঝর্ণার অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। আর তার জেরেই গৃহবধূকে মেরে ঝুলিয়ে দিয়েছে তার স্বামী বলে অভিযোগ তার দাদার। টুম্পাদেবীর বাবার বাড়ির পরিবারের পক্ষ থেকে গৃহবধূর স্বামী সহ তার দুই ভাসুর, দুই জায়ের বিরুদ্ধে গতকাল রাতে নিউটাউনশিপ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামী ধীরেন সুত্রধরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ তাকে দশ দিনের পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানিয়ে দুর্গাপুর আদালতে তোলা হয়। অন্যদিকে গৃহবধূর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Spread The Word