নাবালিকা পাচারকারী সন্দেহে মহিলাকে মারধর

আমার কথা, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৪মার্চঃ

প্রথমে বেধড়ক মার,পরে সকলের সামনে চুল কেটে দেওয়া হয় এক মহিলার। একবিংশ শতকে এমনই বর্বরতার সাক্ষী থাকল পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়াড়ি থানার আনাড় গ্রাম। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে নারী পাচার সন্দেহে মহিলাকে মারধর করে গ্রামবাসীরা। প্রহৃত ওই মহিলার নাম চঞ্চলা প্রধান(৫৪)। যদিও গুরুতর অসুস্থতার কারণে ওই মহিলার সম্পূর্ণ পরিচয় জানতে পারেনি পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রহৃত ওই মহিলাকে উদ্ধার করে প্রথমে কেশিয়াড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ,ওই অপরিচিত মহিলা  গ্রামের মেয়েদের নানা অছিলায় ভুলিয়ে বাইরে পাচার করত। যদিও এর সমর্থনে লিখিত কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি কেশিয়াড়ি থানায়।

সূত্রের খবর আনাড় গ্রাম থেকে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া একটি মেয়ের খোঁজ বর্ধমানে পাওয়া গিয়েছে। মেয়েটির পরিবার খবর পেয়ে বর্ধমানের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে।

Spread The Word